শুক্রবার, ০৭ অগাস্ট ২০২০, ০৪:০৫ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
চট্টগ্রা‌মের প্রধান ৫ প‌ত্রিকা অ‌নি‌র্দিষ্টকা‌লের জন্য বন্ধ শতভাগ উজাড় করে দিয়ে মানুষের সেবায় নিয়োজিত হোনঃ স্বাস্থ্যকর্মীদের রেজাউল করিম চৌধুরী ঈদ বোনাসের দাবিতে আজাদী সম্পাদকের বাসা ঘেরাও সিইউজে’র পশুর হাটের নিকটবর্তী শাখায় রাত ৮ টা পর্যন্ত ব্যাংক লেনদেন আওয়ামী লীগের দলীয় তহবিলের পরিমাণ ৫০ কোটি টাকা ইপিজেড থানার কথিত ক্যাশিয়ার সুলতান ও জাহাঙ্গীরের বেপরোয়া চাঁদাবাজি সরকারের ব্যর্থতায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে : মির্জা ফখরুল স্বাস্থ্যের ডিজির কাছে অভিযোগ করলেন শাজাহান খানের মেয়ে বিএমএসএফ-বন্দরজোন কমিটির প্রথম কার্য্যকরী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয় উত্তরাঞ্চলে পানি বাড়ছে,আর কমছে সিলেটে

শরণখোলার আঞ্চলিক মহাসড়কে ভাংঙ্গা-গড়ার খেলা

আবু হানিফ, বাগেরহাট::
  • প্রকাশের সময়: শুক্রবার, ২৬ জুন, ২০২০

একদিকে চলছে নির্মানকাজ আবার অন্যদিকে ভেঙ্গে পড়ছে। নাম মাত্র বালু দিয়ে কোন প্রকার কম্প্রেকশন ছাড়াই চলছে মহাসড়কের পার্শ্ব প্রসস্তকরনের কাজ। সড়ক বিভাগের নাম মাত্র তদারকির কারনে বাগেরহাটের সাইনবোর্ড-শরণখোলা-বগী আঞ্চলিক মহাসড়কে ইচ্ছা মাফিক কাজ করছেন সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার। অনুসন্ধানে জানাগেছে, বাগেরহাট সড়ক বিভাগ ছয়মাস পূর্বে সাইনবোর্ড-শরণখোলা-বগী আঞ্চলিক মহাসড়কের আমড়াগাছিয়া কাঠেরপুল থেকে রায়েন্দা বাসস্ট্যান্ড পর্যন্ত সড়ক প্রসস্তকরনের দরপত্র আহবান করে। পাঁচ কিলোমিটার সড়কের দুই পাশের্^ তিন ফুট করে পার্শ্ব প্রসস্ত করনের জন্য হেরিংবনের প্রাক্কলন করা হয়। বাগেরহাটের মোজাহার এন্টারপ্রাইজ নামের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানটি ১কোটি ৩৯ লক্ষ টাকার কাজের কার্যাদেশ প্রাপ্তির শুরু থেকেই অনিয়মের আশ্রয় নেয়। দীর্ঘদিন সড়কের কাজ ফেলে রেখে জুন মাসে বিল উত্তোলনের জন্য রাতের অন্ধকারে তড়িঘড়ি করে প্রকল্প বাস্তবায়নে মরিয়া হয়ে উঠেছে। সরেজমিনে দেখা যায়, নির্মান কাজে প্রকার কম্প্রেকশন ছাড়াই আড়াই থেকে তিন ইঞ্চি বালু দেয়ার পওে ইট বিছানো হচ্ছে এবং গাড়ীর চাকা ওঠার সাথে সাথে তা দেবে যাচ্ছে। এছাড়া রাস্তার পাশে কোন মাটি না দেয়ায় ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি পয়েন্ট থেকে ভেঙ্গে গেছে। ধানসাগর ইউনিয়ন পরিষদের ৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর হোসেন আকাশ ও তাফালবাড়ি স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক নজরুল ইসলাম বলেন, নামমাত্র বালু ব্যবহার করে কতটা খারাপ ভাবে কাজ করছে তা বলে বুঝানো যাবে না এবং কাজ শেষ করার আগেই তা ভেঙ্গে পড়ছে। কাজের নামে সরকারি অর্থ লোপাট ছাড়া আর কিছুই হচ্ছে না বলে মন্তব্য করেন। এই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের অধীনে শরণখোলায় যতগুলি কাজ হয়েছে তা সবগুলোই নিম্মমানের। যার জন্য মানুষকে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।


ধানসাগর ইউপি চেয়ারম্যান মাঈনুল ইসলাম টিপু, আমড়াগাছিয়া এলাকার মুক্তিযোদ্ধা অজিত কির্ত্তনিয়া ও মনিন্দ্রনাথ হালদার বলেন, দীর্ঘদিন কাজ ফেলে রাখার পর জুন মাসে বিল তোলার জন্য এখন দায়সারাভাবে কাজ করছেন। এর চেয়ে কাজ না করাটাই অনেক ভাল ছিল। তারা বিষয়টির জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করেন। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বাগেরহাট সড়ক বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী ও নির্মান কাজের তদারকি কর্মকর্তা মোঃ রিপন মিয়া বলেন, তার যোগদানের আগে ওই কাজের প্রাক্কলন করা হয়েছে। প্রাক্কলনে মাত্র তিন ইঞ্চি বালু ধরায় কাজটি ঠিকমতো হচ্ছে না। এলাকাবাসীর অভিযোগের কারনে বিষয়টি নিয়ে আমরাও বিব্রত। তবে যেসব স্থানে দেবে বা ভেঙ্গে গেছে তা পুনঃরায় ঠিক করে দেয়া হবে। বাগেরহাট সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ ফরিদ উদ্দিন বলেন, এ বিষয়টি আমি নিজেও দেখে এসেছি। কম্প্রেকশনের পরে মুলতঃ তিন ইঞ্চি বালু থাকার কথা। আসলে বৃষ্টির কারনে নির্মানাধীন সড়কটি দেবে যাচ্ছে। তবে, সব কাজ ঠিক করে না দেয়া পর্যন্ত ঠিকাদারকে কোন বিল দেয়া হবে না। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মোজাহার এন্টারপ্রাইজের মালিক মোঃ মশিউর রহমান সেন্টু বলেন, বৃষ্টির কারনে সড়কটির কিছু ক্ষতি হয়েছে। তবে, ভয়ের কিছুই নেই। ভেঙ্গে যাওয়া স্থানগুলো ঠিক করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

দেশের নিউজ’র ই-পেপার::

বিজ্ঞাপন::

বিজ্ঞাপন::

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
Shahriar@01717698939